ধর্ম স্বাধীন

#1
images-17-jpeg.514

জীবন চালনাকারী যে মন্ত্রশক্তির নাম মন,দেহের অর্ধেক নিয়ন্ত্রণ কারী যে মন,আবেগ ধারণকারী
যে মন,সেই মনকে স্বাধীনতা না দিলে,যদি না হয় তার বিচরণ অন্তরিক্ষে,তবে সেটা মন নয়,মৃত মানুষকে যেমন লাশ ডাকা হয় তার নামও হয় প্রেত।

মানুষ ধর্মকে বিশ্বাস করে নৈতিকতার দায়ে কিন্তু,
বাস্তবতা কি বলে?
ধর্ম শুধু মাত্র বিশ্বাসের স্থান না,এর সাথে জড়িয়ে আছে জীবন,মানবসভ্যতার ভবিষ্যত,চিন্তাশক্তি ও তাৎপর্যপূর্ণ ইতিহাস।
জীবনের সাথে ধর্মের সম্পর্ক অনেকটা দেহের সাথে মনের মতো,পরিপূরক টাইপ।তবে ব্যাতিক্রম থাকবেই,সমাজের সব মানুষকে যেমন সুস্থ সবল হওয়া শর্ত না,ঠিক তেমনি সব ক্ষেত্রে ধর্মকে জীবনের পরিপূরক ভাবাও অসামঞ্জস্য।

তবে কালের প্রেক্ষাপটে অদ্যকালের ধর্মচর্চার নামে ইতিহাস বিকৃতি আর উগ্রতা ছড়ানো কোনো শান্তির ধর্মই সমর্থন করে না।
মুক্তচিন্তা হচ্ছে প্রতিটি মানুষ তার মানুষ হয়ে জন্ম নেয়ার অধিকার।তাই চিন্তাশক্তিকে বাধাগ্রস্ত করে নিজচিন্তা দ্বারা একক ক্ষেত্র প্রসারিত করা কোনো উদ্দেশ্যপ্রণোদিত অসৎকর্ম বৈ কিছুই না।
 
Last edited by a moderator:

বর্ণমালা এন্ড্রয়েড এপ

ফেসবুকে বর্ণমালা ব্লগ

নতুন যুক্ত হয়েছেন

Top