প্রিয়তমেষু ।। বুনোহাঁসের চিঠি

Arafat Tonmoy(বুনোহাঁস)

সুপার ব্লগার
#1

প্রিয়তমেষু,
অমাবস্যাতিথি পেরিয়ে যাওয়ার পর ঠিকই আবার পূর্ণিমা রাতে প্রিয় মানুষটিকে সাথে নিয়ে জ্যোৎস্না বিলাস করার স্বপ্ন দেখা যায়; তা পূরণও হয়। ইতোমধ্যে সাতচল্লিশ বসন্ত পেরিয়ে গিয়েছে আর কত বসন্ত পেরিয়ে গেলে তুই আবার আসবি? শুধু একবারের জন্য...
সেই যে আসি বলে গেলি আর তো আসলি না, কিন্তু আরও একটি বার তোর আসার কথা ছিল! ভুলে গিয়েছিস? তোর স্মরণ শক্তি তো অনেক ভালো ছিল। তবে কি এমন হলো? আনচান করা আমার এই মন যে আর বাধা মানে না, আঁখি যুগল তো পাতা ফেলতেই চাইছে না। চিরতরে চোখ বন্ধ করার আগে শেষবারের মতো একবার কেবল একটি বার তোকে দেখে নয়ন জুড়াতে চাই। এই দেখ শুধু নিজের অনুভূতির কথাই বলে যাচ্ছি। তোর খবর নেবার কথা পর্যন্ত ভুলে গিয়েছি। কেমন যেন স্বার্থপর হয়ে গেলাম। তোকে ভালোবেসে আসলেই স্বার্থপর হয়ে গিয়েছি। তুই বলে সম্বোধন করা-তে রাগ করছিস? আরে বোকা এই 'তুই' তোকে অবজ্ঞা করার জন্য বলিনি এই শব্দটা এসেছে ঠিক অন্তর গহীন থেকে। পরম শ্রদ্ধা আর নিগূঢ় ভালোবাসা থাকলেই কেবল সেখান থেকে অনুভূতি মেশানো এমন শব্দ আসে।
বীরাঙ্গনা, কেমন আছিস?
অবাক হয়ে গেলি? এই কাঁদবি না একদম। তোর সুন্দর ওই ডাগর ডাগর চোখ ফুলে লাল হয়ে যাবে, যত্ন করে লাগানো কাজলও লেপ্টে যাবে। তোর এমন পেঁচার মতো চেহারা আমি দেখতে পারবো না বাপু। তুই কতবার করে বলেছিলি, গঞ্জে মেলা বসলে আমি যেন টুকটুকে লাল রেশমি চুড়ি আনি। আমি এনেছিলাম, সেই চুড়িগুলোর রঙ এখন কেমন ফ্যাকাসে হয়ে গিয়েছে। বীরাঙ্গনা, আমি এখনো জ্যোৎস্না রাতে পুকুর পাড়ে গিয়ে বসে থাকি, তুই আসবি বলে। তুই আসছি বলেই তো গিয়েছিলি, আমি সেই কথা ভুলিনি। সেই রাতে যদি আমি তোকে ওই রূপে দেখার জন্য তাগাদা না দিতাম তাহলে এই অপেক্ষা করার কোনো মানে ছিল না। এই বল না, আমি কি বেশি কিছুই চেয়েছিলাম? আমার তো মনে হয় না। জ্যোৎস্না রাতের রূপালি আলোয়, আকাশী রঙের শাড়ি পরা খালি কপালে আলতার বোতল হাতে অন্য এক তোকে দেখতে চেয়েছিলাম। যার চরণ দুটো আমি নিজ হাতে আলতায় রাঙিয়ে দেব! সুন্দর ওই ভ্রু যুগলের ফাঁকে সেই পূর্ণিমা চাঁদের আলোর ছোঁয়ায় কল্পনার টিপ এঁকে দেব! কিন্তু তুই আসি বলে গিয়ে আর আসলি না! আমি তো কোনোদিন তোর দিকে অপবিত্র নজর দিইনি। তবে হায়েনারা কেন তুই বীরাঙ্গনাকে খুবলে খেয়েছে? আমার হৃদয় যে দুমড়ে-মুছড়ে গিয়েছে, সেই চাপা আর্তনাদ যে চামড়ার কান দ্বারা শোনা সম্ভবপর নয়। বীরাঙ্গনা, তোর তো দোষ ছিল না। তবুও সেই বিচার পাবো না? অন্তত যদি তোর লাশ খুঁজে পেতাম তাহলে রেশমি চুড়ি হাতে পরিয়ে দিয়ে আমি এক বুক প্রশান্তির নিঃশ্বাস ছাড়তাম। আমার বীরাঙ্গনার ইচ্ছা পূরণ করতে পেরেছি!
বীরাঙ্গনা, তুই তো বলতি আমার সাহিত্য ভাবনা বেশ চমৎকার। রুগ্ন এই দেহে প্রাণ থাকা অবধি যেন লিখে যাই। জানিস? তোর ইচ্ছাকে আমি বাস্তবে প্রমাণ করতে পরিনি। এখন লিখতে মন সায় দেয় না, হাতটা কেবল কাঁপে। তবে তোর জন্য শুধুমাত্র তোর জন্য আমি শেষ বারের মতো একটি কবিতা লিখেছি,
সে ফিরবে।

আমার অন্তর গহীনে বারংবার
প্রতিধ্বনিত হয় একটি শব্দ,
হৃদ স্পন্দন থমকে দাঁড়ালেও
ওই শব্দটি শোনা যায় স্পষ্ট!

ঘোর অমানিশায় আমি স্তব্ধ
তবুও প্রতিধ্বনিত হয় একটি শব্দ,
তার প্রতিচ্ছবি ভেসে বেড়ায়
আকাশ, পাহাড় কিংবা দেয়ালে
নির্লজ্জ আঁখি যুগল ঠিকই খুঁজে পায়।

বেহায়া মন আমার
বুঝতে চায় না;
সে যে,
স্বপ্নের নদী পাড়ি দেয়ার
খেয়া নৌকার মাঝি;
বৈঠা ফেলে গেছে আমাতে!

চোখ দুটো তার কাজলবর্ণা
চিবুক জুড়ে যেন বেয়ে পড়ে ঝর্ণা,
ভ্রু যুগল আহা!
মুক্ত আকাশে উড়ন্ত পাখি।
নাক তার ডাকাতিয়া বিল
ঠোঁটের বাঁ কোণে ঠিক
সোয়া ইঞ্চি নিচে নয়ন জুড়ানো তিল
শিমুল ফুলের চেয়েও স্নিগ্ধ!
তীক্ষ্ণ দৃষ্টি তার
বুকে এসে বিঁধে আমার
তবুও প্রতিধ্বনিত হয় একটি শব্দ।
ডান নাকে নোলক তার
মেঘবরণ চুল,
আলতা রাঙা পায়ে
আমি পরিয়ে দেব নূপুর।

তার মাঝে-তে মাতাল আমি
তবুও প্রতিধ্বনিত হয়
কেবল একটি শব্দ
"সে ফিরবে"
-----------
একবারও আবৃত্তি করিনি। তোর জাদুকরী কোমল ওই মায়াবী কণ্ঠে তুই'ই যে আমার কবিতা আবৃত্তি করে আমাকে শোনাতিস। আমার লেখনশৈলী পরিপূর্ণতা পেত তোর দরাজ কণ্ঠে। এই কবিতাটি শোনাবার জন্য হলেও তোকে একটি বার আসতে হবে। আমি অধীর আগ্রহভরে অপেক্ষার প্রহর গুনছি।
শুনতাম এক কালে মানুষ শান্তিদূত কবুতরের মাধ্যমে চিঠি আদান-প্রদান করত। আর আমি এই চিঠির বাহক নির্বাচন করেছি মৃত্যুদূতকে...
জানিস তো বিদায় শব্দটিতে আমার চরম অস্বস্তি আছে। ও হ্যাঁ, তোর থেকে আরও উত্তর আশা করছি; স্বাধীনতার সাতচল্লিশ বছর পরও আমরা কেন পরাধীনতার শেকলে আবদ্ধ?
আমি অধীর আগ্রহভরে অপেক্ষার প্রহর গুনছি।

ইতি
বুনোহাঁস :)
 
Last edited by a moderator:

Rakib Jaman

নতুন সদস্য
#5
ঘোর অমানিশায় আমি স্তব্ধ
তবুও প্রতিধ্বনিত হয় একটি শব্দ,
তার প্রতিচ্ছবি ভেসে বেড়ায়
আকাশ, পাহাড় কিংবা দেয়ালে
নির্লজ্জ আঁখি যুগল ঠিকই খুঁজে পায়।
Nice silo...:love::love:
 

Naiem Rana

সুপার ব্লগার
#8
খুব সুন্দর হয়েছে:unsure::unsure:
আশা করি পরবর্তীতে বর্ণমালা ব্লগ এ আবার ও সুন্দর একটি ব্লগ নিয়ে হাজির হবে:love:
 

বর্ণমালা এন্ড্রয়েড এপ

নতুন যুক্ত হয়েছেন

Top