• সুখবর........ সুখবর........ সুখবর........ বর্ণমালাকে খুব শিঘ্রই পাওয়া যাবে বাংলা বর্ণমালার ডোমেইন "ডট বাংলায়" অর্থাৎ আমাদের ওয়েব এড্রেস হবে 'বর্ণমালাব্লগ.বাংলা' পাশাপাশি বর্তমান Bornomalablog.com এ ঠিকানায়ও পাওয়া যাবে। বাংলা বর্ণমালায় পূর্ণতা পাবে আমাদের বর্ণমালা।

সেই রাত ।। তাসনীম

#1
images-23-jpeg.316


ঝুম বৃষ্টিতে ভজে অফিস থেকে ফিরছিলাম।সময়টা ছিল সন্ধ্যা আর বিকালের সন্ধিলগ্ন।গোধূলি বলা চলে,আকাশে কালো মেঘের ঘনঘটা আর বনের মধ্য দিয়ে আঁকাবাঁকা রাস্তায় মৃদ অন্ধকার। মেঘের গর্জন আর বিদ্যুৎ ঝলকানি রীতিমত ভূতুড়ে পরিবেশ জানান দিচ্ছে।দ্রুত পায়ে হেটে চলা সত্বেও আজ মনে হচ্ছে রাস্তাটা অনেক দীর্ঘ। মনে হচ্ছে শরীর খারাপের আগাম দিচ্ছে।বিদ্যুতের ঝলাকানিতে বনের মাঝে একটা পুরনো বাড়ি দৃষ্টিগোছর হল।একবছর ধরে এখানে আছি আগে কখনো নজরে পড়েনি, তবে আজ........
যাক অত ভাবার সময় নেই,পা দুটোকে একটু হালকা করতে হবে...!
এগিয়ে গেলাম বারান্দায়,ধপ করে বসে পড়ালাম। সারা গা দিয়ে অঝোরে পানি পড়তেছে।গায়ের কোটটা খুলে ঝুপের উপর মেলে রাখলাম।ততক্ষনে সন্ধ্যা পেরিয়ে গেছে।

কখন যে ঘুমিয়ে গেছিলাম তার ঠিক নাই,লাফিয়ে উঠলাম খিল খিল হাসির শব্দে,কোটটা ঠিক জায়গাই না পেয়ে অবাক হলাম,এদিকে ঘুমের রেশ তখনো কাটেনি।
মেঝের দিকে তাকিয়ে একটা দাগ দেখলাম, সম্ভবত কিছু একটা টান দিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়ছে।কৌতূহলী হয়ে দাগ বরাবর হাঁটতে লাগলাম।যত সামনে যাচ্ছি হাসির শব্দ গভীর হচ্ছে,আমার তখনো মনে হয়নি এই বৃষ্টিতে আমি একা নয়,মনে হয়নি হাসিটা অস্বাভাবিক কিছু নয় তো?কোটটাকে একটা বড় রুমের মাঝে দেখতে পেলাম,হাসির শব্দটা ততক্ষনে কোথায় যেন হারিয়ে গেল।থমথমে নীরবতা,আর সহজে মনে পড়ল কোটটাকে এখানে কে আনল,ভয়ে আমার দেহে ঠান্ডা স্রোত বয়ে যাচ্ছে.....।

বৃষ্টি মোটামোটি কমেছে হালকা হলকা আলোতে পুরো বাড়িটাই দেখতে পাচ্ছি আমি বেরয়ে যাওয়ার জন্য পা বাড়ালাম আবার সেই হাসির শব্দ শুনতে পেলাম,আমার জান তা যায় যায় অবস্তা হয়ে দাঁড়িয়েছ, তবু কেন জানি আমি দাঁড়িয়ে পড়ি।রহস্যের অন্তিম না দেখে শান্তি নেই আমার।আবার সেই বড় রুমটাতে ফিরে আসলাম,এবার রুমটাতে কয়েকটা মেয়ে কে দেখতে পেলাম,আর এই হাসিটা উড়াই হাসছিল,মেয়ে গুলো উলটা মুখ করে বসে আছে...।

কিছুটা সাহস জুগালাম মনে,ভয় জড়ানো মৃদু কন্ঠে জিজ্ঞেস করলাম কে?
কিন্তু কোন উওর পাইনি,হয়তো নিজেদের হাসির মাঝে আমার ক্ষীণ আওয়াজ পাত্তা দেইনি।
আরো জোরে আওয়াজ করে বললাম আপনারা কারা?
উরা পিছনে ঘুরে থাকালো,আমার চোখদুটি ছানা বড় হয়ে গেল উদের চাহনি দেখে উদের চোখ দিয়ে রক্ত বের হচ্ছে সাদা কালো চুল গুলো যেন জেগে উটল।উদের মুখ ফ্যাকাসে কিন্তু রহ্যস্যের হাসিতে আবৃত ছিল।এটা বুঝতে পারছি যে উরা মানুষ নয়,তবে উরা কারা উদের দিকে যতই তাকাচ্ছি তাদের হাসির মাত্রা যেন বেরেই চলছে।তবে উদের হাসি এবার আমাকে অবাক করেনি।শূন্য ভেসে এগিয়ে আসছিল আমার দিকে,আমার পা অনড় হয়ে যাচ্ছিল,দৃষ্টিদ্বয় প্রশারিত করে দেখছিলাম,আমি যেন বুবা হয়ে গেছি,
সমস্ত শক্তি দিয়ে গলা চিবে ধরলাম আর একটা আওয়াজ করেছিলাম আল্লাহু আকবর।প্রাণ হাতে নিয়ে দোড়াতে লাগলাম,পেছনে পেলে সেই ভূতুুড়ে বাড়ি টাকে,এইবার রাস্তাটা খুব দ্রুত শেষ হয়ে গেল,সেই সাথে আমার মস্তিষ্কের জাগ্রত ভাবটাও...!

আমি সেখান থেকে বদলি হয়ে চলে আসি,সেই দিনের সেই রাতটা আমার মনের মাঝে সীমাবদ্ধ, কাউকে বলিনি বললে হয়তো পাগল বলবে।
আজো নগরীতে সেই রাতের কথা মনে পড়লে শিউরে উঠি,এখন বৃষ্টি হলে মাঝরাতে আর থামিনা...।
 

বর্ণমালা এন্ড্রয়েড এপ

নতুন যুক্ত হয়েছেন

Top