• সুখবর........ সুখবর........ সুখবর........ বর্ণমালাকে খুব শিঘ্রই পাওয়া যাবে বাংলা বর্ণমালার ডোমেইন "ডট বাংলায়" অর্থাৎ আমাদের ওয়েব এড্রেস হবে 'বর্ণমালাব্লগ.বাংলা' পাশাপাশি বর্তমান Bornomalablog.com এ ঠিকানায়ও পাওয়া যাবে। বাংলা বর্ণমালায় পূর্ণতা পাবে আমাদের বর্ণমালা।

হতভাগা রাশিদ(পর্ব-১)।।নাবিল হাসান।।

নাবিল হাসান

সুপার ব্লগার
#1
untitled-6_171900-jpg.143
টিং,টিং,টুং,টুং.......
রাশিদের মোবাইলে অবিরাম এলার্ম বেজেই চলছে।আজ সকাল ১০ টার সময় কলেজে দর্শনের বিশেষ ক্লাস আছে তাই সকাল সকাল পৌছাতে হবে।
রাতে বাবাকেও বলে রেখেছে জাগিয়ে দেয়ার জন্যে।কিন্তু ঘুমের সময় কি আর এত কিছু মনে থাকে?
ঘুমের ঘোরে এলার্ম বন্ধ করতে করতে বলল,"শালার পোত আমার আরামের ঘুমটা হারাম করে দিলি,আজ তর একদিন কি আমার একদিন।"আর এদিকে এলার্ম অফ করতে গিয়ে ভুল বসত কল চলে যায় তার সবচেয়ে প্রিয় বন্ধু রাতুলের কাছে।আর এমন সময় তার বাবাও এসে তাকে ডাকতেছিলেন,
-রাশিদ,রাশিদ উঠ বাবা ৯টা বেজে গেছে। আজ না তোমার কলেজে কিসের ক্লাস আছে?
.
বাবার ডাকটা অবশ্য রাশিদ শুনতে পায়নি। এলার্মের শব্দেই তার ঘুম ভেঙ্গে ছিল।যাই হোক,তার বন্ধু তো রাগে গজ গজ করতে করতে ফোন কেটে দিয়েছিল।
আর এদিকে বাবা তাকে কথাটা বলেছে মনে করে,
সাত পাচ না ভেবে ঠাস করে একটা চড় বসিয়ে দিলেন রাশিদের গালে।বেচারা রাশিদ কি জন্য চড় খেল কিছুই বুজতে পেল।কারণ, তার বাবা তাকে কখনো এভাবে মারেননা ,বিশেস করে ঘুমের কারণে।
.
যাই হোক,বাবা তাকে চড় টা মেরেই রাগে চলে গিয়েছিলেন,আর রাশিদ গালে হাত বুলাতে বুলাতে ফ্রেশ হওয়ার জন্য বাথরুমে চলে গেল।
তারপর ব্রেকফাস্ট করে কলেজের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হল।
রাশিদ হাটতে হাটতে ভাবতে লাগল কি এমন ঘঠেছিল যে এত বড় একটা চড় তার গালে এসে পড়ল।এসব ভাবতে ভাবতে কিছু সময়ের জন্য আনমনা হয়ে পড়েছিল রাশিদ।সম্মতি ফিরে পেয়ে কলেজের দিকে দ্রুত পা বাড়াল........(চলবে)
 
Last edited by a moderator:

Khaled Al Mahmud

সুপার ব্লগার
#2
টিং,টিং,টুং,টুং.......
রাশিদের মোবাইলে অবিরাম এলার্ম বেজেই চলছে।আজ সকাল ১০ টার সময় কলেজে দর্শনের বিশেষ ক্লাস আছে তাই সকাল সকাল পৌছাতে হবে।
রাতে বাবাকেও বলে রেখেছে জাগিয়ে দেয়ার জন্যে।কিন্তু ঘুমের সময় কি আর এত কিছু মনে থাকে?
ঘুমের ঘোরে এলার্ম বন্ধ করতে করতে বলল,"শালার পোত আমার আরামের ঘুমটা হারাম করে দিলি,আজ তর একদিন কি আমার একদিন।"আর এদিকে এলার্ম অফ করতে গিয়ে ভুল বসত কল চলে যায় তার সবচেয়ে প্রিয় বন্ধু রাতুলের কাছে।আর এমন সময় তার বাবাও এসে তাকে ডাকতেছিলেন,
-রাশিদ,রাশিদ উঠ বাবা ৯টা বেজে গেছে। আজ না তোমার কলেজে কিসের ক্লাস আছে?
.
বাবার ডাকটা অবশ্য রাশিদ শুনতে পায়নি। এলার্মের শব্দেই তার ঘুম ভেঙ্গে ছিল।যাই হোক,তার বন্ধু তো রাগে গজ গজ করতে করতে ফোন কেটে দিয়েছিল।
আর এদিকে বাবা তাকে কথাটা বলেছে মনে করে,
সাত পাচ না ভেবে ঠাস করে একটা চড় বসিয়ে দিলেন রাশিদের গালে।বেচারা রাশিদ কি জন্য চড় খেল কিছুই বুজতে পেল।কারণ, তার বাবা তাকে কখনো এভাবে মারেননা ,বিশেস করে ঘুমের কারণে।
.
যাই হোক,বাবা তাকে চড় টা মেরেই রাগে চলে গিয়েছিলেন,আর রাশিদ গালে হাত বুলাতে বুলাতে ফ্রেশ হওয়ার জন্য বাথরুমে চলে গেল।
তারপর ব্রেকফাস্ট করে কলেজের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হল।
রাশিদ হাটতে হাটতে ভাবতে লাগল কি এমন ঘঠেছিল যে এত বড় একটা চড় তার গালে এসে পড়ল।এসব ভাবতে ভাবতে কিছু সময়ের জন্য আনমনা হয়ে পড়েছিল রাশিদ।সম্মতি ফিরে পেয়ে কলেজের দিকে দ্রুত পা বাড়াল........(চলবে)
অপেক্ষায় রইলাম
 

নাজিব ইসলাম

নতুন সদস্য
#3
অপেক্ষায় রইলাম
দাড়ি কমার দিকে খেয়াল রাখতে হবে সেই সাথে বাংলা শব্দ ব্যবহারের চেষ্টা করলে আরও ভাল হয়।
 

বর্ণমালা এন্ড্রয়েড এপ

নতুন যুক্ত হয়েছেন

Top